সুবাহ’র একটি বিকেলের জন্য এক বছর অ'পেক্ষা

২০১৯ সালে ‘বসন্ত বিকেল’ সিনেমা'র শুটিং শুরু হয় রাজধানীর উত্তরায়। গত বছর সিনেমা'র ক্যামেরা বন্ধ করা হয়। ক্যামেরা বন্ধ হয়েছিল ঠিকই, কিন্তু ছবিটির একটি দৃশ্যে খামতি রয়ে যায়। চলতি বছরের ভালোবাসা দিবসে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ‘খামতি’ সে পথ থেকে সরে আসতে বাধ্য করে নির্মাতাকে।

দীর্ঘ একটা বছর অ'পেক্ষা ছিল। কবে আ'গুন রঙা শিমুল, পলা'শের আভা ছড়িয়ে পড়বে বসন্তের বাতাসে। হলদে রোদের তল দিয়ে একটি শব বহন করে নিয়ে যাচ্ছে শববাহীরা, এমন একটি নিখুঁত দৃশ্যের জন্য একটি বসন্ত বিকেলের প্রয়োজন ছিল। এক বছর পরে সেই অ'পেক্ষার অবসান হয়েছে, এক আ'গুন গনগনে বিকেলে বিদায় নেবে চন্দ্রাবতী- কয়েক মিনিটের সেই দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে।

পাবনা শহরে বেড়ে ওঠা রুদ্র ও চন্দ্রাবতী নামের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত দুই হিন্দু যুবক ও যুবতীর প্রে'মের পরিণতির গল্প নিয়ে নির্মাণ হয়েছে ‘বসন্ত বিকেল’। এটি রফিক শিকদার পরিচালিত তৃতীয় সিনেমা। শিপন ও সুবাহ ছাড়া গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন অ'ভিনেতা তানভীর তনু।  রফিক সিকদার একই সঙ্গে এই চলচ্চিত্রের গল্পকার, সংলাপ রচয়িতা এবং চিত্রনাট্যকারের ভূমিকায় রয়েছেন। চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করছেন সামসুজ্জামান রিমন।

বসন্ত বিকেল সিনেমায়ই নায়িকা হিসেবে অ'ভিষেক হবে সুবাহর। তিনি বলেন, ‘সিনেমা'র নায়িকা হব এটা যেমন আমা'র স্বপ্ন ছিল। যে স্বপ্ন নিয়ে সিনেমা'র নায়িকা হতে আসা, একটু একটু করে আমা'র স্বপ্নগুলো পূরণ হচ্ছে। অবশ্যই ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানাই রফিক সিকদার ভাইকে চন্দ্রবতী নামের চরিত্রে আমাকে সুযোগ দেওয়ার জন্য।’ বসন্ত বিকেল সিনেমাটি প্রযোজনা করছে আরবিএস টেক লিমিটেড।

২০১৯ সালে রাজধানীর বিএফডিসিতে বেশ জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বসন্ত বিকেলের মহরত অনুষ্ঠিত হয়। মহরত অনুষ্ঠানে প্রধান অ'তিথি ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স'ম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি শামসুল হক টুকু। সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য তিনি তরুণ পরিচালক রফিক শিকদারকে ধন্যবাদ জানান।

একই সঙ্গে বসন্ত বিকেল সিনেমা'র মধ্য দিয়ে মানুষ আবার হলমুখী হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন শামসুল হক টুকু।

সিনেমাটির গল্পের পটভূমি বিষয়ে পরিচালক রফিক শিকদার জানান, মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের স্মৃ'তিবিজড়িত পাবনা শহরকে কেন্দ্র করে চলচ্চিত্রের কাহিনি নির্মিত হয়েছে। এই শহরের শৈশব হতে বেড়ে ওঠে মু'সলিম ধ'র্মাবলম্বী রুদ্র ও হিন্দু ধ'র্মাবলম্বী চন্দ্রাবতী। পরিণত বয়সে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে  অবস্থায় তাদের প্রণয় হয়, যার সমাপ্তি ঘটে বিয়োগান্তক পরিস্থিতিতে।

সিনেমা'র বিষয়ে রফিক শিকদার আরো জানান, বসন্ত বিকেল সিনেমাটি শুধু দেশের জন্য আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রদর্শনের জন্য তিনি এটি নির্মাণ করবেন। এমনকি আন্তর্জাতিক সিনেমা'র পুরস্কার অর্জনের জন্যও তিনি এটি জমা দেবেন।

Back to top button