আমি যাই করি মানুষের সহ্য হয় না : হিরো আলম

আমি একজন শিল্পী। আপনারা সবাই জানেন। এই গানটা আমি শখের বসে করেছিলাম। এখন সবার একটাই প্রশ্ন গান আমি কেন গাইলাম?

শাওন আপা, চঞ্চল চৌধুরী, নুসরাত ফারিয়া আরও অনেক অ'ভিনয় শিল্পী কিন্তু গান করেছেন। তো আমি মনে করলাম বগুড়ার আঞ্চলিক ভাষায় একটা গান করার চেষ্টা করা যায় কি-না।

এছাড়া আমি প্রথম সারির মিউজিক কম্পোজারদের ও প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে গান নিয়ে কথা বলেছি। কিন্তু কেউ আমাকে সাপোর্ট দেয়নি। তখন ভাবলাম ঠিক আছে আমি নিজের চ্যানেলেই গান প্রকাশ করবো। সেই ভাবনা থেকেই গানটি করা। নিজের প্রথম গান নিয়ে এভাবেই বলছিলেন হিরো আলম।

২৬ নভেম্বর ইউটিউবে মুক্তি পাওয়া বাবু খাইছো শিরোনামে গানটির ভিউ প্রায় সাড়ে তিন লাখের কাছাকাছি। আর লাইক পড়েছে ১১ হাজার, ডিজলাইক ৩৩ হাজার। সাড়ে ১১ হাজার কমেন্টসের বেশির ভাগই নেতিবাচক।

সমালোচনা প্রসঙ্গে হিরো আলম বলেন, বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই নেগেটিভ মন্তব্য পাচ্ছি। দেখু'ন আমা'র কোনো ওস্তাদ নাই। যদি আমা'র ওস্তাদ থাকতো তাহলে হয়তো আরও ভালো গাইতে পারতাম।

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমা'র কোন জিনিসটা মানুষ পজেটিভভাবে নিয়েছে। যখন অ'ভিনয় করতে আসি তখনও সমালোচনা করেছে। এমপি নির্বাচন করলাম তাও সহ্য হলো না, সিনেমা করলাম সেটাই সহ্য হলো না, এখন গান গাইলাম এটাও কারো সহ্য হচ্ছে না। আমা'র কোনো কিছুই মানুষের সহ্য হয় না।

আবারও গায়ক হিসেবে দেখা যাবে কিনা জানতে চাইলে হিরো আলম বলেন, আমা'র বগুড়ার আঞ্চলিক ভাষায় গান করার ইচ্ছে আছে। সামনে আরও অনেক গান করবো। প্রথম গানে সমস্যা থাকতে পারে। সামনে আরও গান করি। তখন না হয় সবাই সমালোচনা করবেন।

Back to top button