কাতারে ২ টন মাংস নিয়ে গেছেন মেসি, সুয়ারেসরা

দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ হিসেবে পরিচিত ফিফা বিশ্বকাপে অংশ নিতে এরই মধ্যে কাতার পৌঁছেছে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। নিজেদের সর্বশক্তি নিয়ে বিশ্বকাপে গেছে সবাই।

কাতারে এক মাস থাকতে হবে দলগুলোকে। এ সময়ে ফুটবলারদের ঘরের খাবারের স্বাদে নেয়া অব্যাহত রাখতে প্রায় দুই টন মাংস নিয়ে গেছে আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ে দল।

দুই দেশের ফুটবল ফেডারেশনের মূল লক্ষ্য খেলোয়াড়দের খুশি রাখা।

উরুগুয়ে ফুটবল অ্যাসোশিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ইগনাসিও আলসানো গোল ডটকমকে বলেন, ‘উরুগুয়ের জাতীয় দলের ফুটবলারদের সেরা পুষ্টি নিশ্চিত করা হয়। আমরা আমাদের দলকে প্রতিনিধিত্ব করার পাশাপাশি দেশের আরেকটা জিনিসকে প্রতিনিধিত্ব করতে চাই। সেটা হলো উরুগুয়ের বিশ্ববিখ্যাত মাংস।’

ওই খবরে কোন ধরনের মাংস নেয়া হয়েছে, সেটি উল্লেখ করা হয়নি।

আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি বলেন, ‘মাংস ভাজা আমার পছন্দের খাবার। এটা আমাদের সংস্কৃতির একটা অংশ।’

দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলো মাংস উৎপাদনের জন্য বিশ্বখ্যাত। তারা মাংসের বড় ভোক্তাও।

Back to top button