নায়ক শান্ত খানের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে দুদক

দুর্নীতি মামলার আসামী চাঁদপুরের ১০ নং লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. সেলিম খানের ছেলে নায়ক শান্ত খানের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ লক্ষে দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক মো. আতাউর রহমান সরকার স্বাক্ষরিত চিঠি গত ১৪ আগস্ট ৫৮টি দেশী-বিদেশী ব্যাংকের এমডি ও সিইও এর কাছে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, শান্ত খানের বিরুদ্ধে অবৈধ ব্যবস্যা ও কার্যক্রমের মাধ্যমে জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ রয়েছে। এই অভিযোগের সুষ্ঠু অনুসন্ধানের স্বার্থে ব্যাংকগুলোতে তার নিজের ও যৌথ নামীয় সঞ্চয়ী, চলতি হিসাব, এফডিআর, ডিপিএস ইত্যাদির হিসাব বিবরণী, হিসাব খুলার ফরম, কেওয়াইসি পাঠাতে বলা হয়েছে। এছাড়া ঋন হিসাব সংক্রান্ত বিস্তরিত তথ্য, জামানত ও ঋন পরিশোধের তথ্য, সঞ্চয়পত্র ও ক্রেডিট কার্ড সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়েছে।

অভিযোগের সুষ্ঠু অনুসন্ধানের জন্য দুদক আইন-২০০৪ এর ধারা ১৯ ও দুদক বিধিমালা-২০০৭ এর বিধি ২০ অনুয়ায়ি ব্যাংক থেকে ওইসব তথ্য চাওয়া হয়েছে। আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে ওইসব তথ্য ও রেকর্ডপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি অভিযোগটির অনুসন্ধান কর্মকর্তা আতাউর রহমান সরকারের কাছে পাঠানোর জন্য ব্যাংকগুলোর এমডি ও সিইও এর কাছে অনুরোধ করা হয়েছে।

শান্ত খানের বাবা সেলিম খানের বিরুদ্ধে দুদক দুদক মামলা করেছে গত ১ আগস্ট। ওই মামলায় তার বিরুদ্ধে অবৈধ উপায়ে ৩৪ কোটি ৫৩ লাখ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে। শিগগির সেলিম খানের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ ক্রোক ও ফ্রিজ করতে আদালতে আবেদন জমা দেবে দুদক। দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তার স্থাবর সম্পদ ক্রোক ও অস্থাবর সম্পদ ফ্রিজের আদেশ দেবেন। আদালতের ওই আদেশের পর সেলিম খান তার কোন সম্পদ বিক্রি, হস্তান্তর, স্থানান্তর, রূপান্তর করতে পারবেন না।

Back to top button