সংসদ সদস্যর বিরুদ্ধে গিয়ে পুলিশকে ধন্যবাদ জানাল ছাত্রলীগ

এবার বরগুনায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনায় বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মহররম আলীর বরখস্ত দাবি করলেও সংবাদ সম্মেলন করে মহররম আলীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক।

গতকাল সোমবার ১৫ আগস্ট সন্ধ্যার পর বরগুনা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত দোয়া ও আলোচনা সভায় সংসদ সদস্য শম্ভু মহররম আলীর বরখস্ত দাবি করার কিছুক্ষণ পরই পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করে ছাত্রলীগ সভাপতি ও সম্পাদক।

এদিকে প্রথমে সংসদ সদস্য ও বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু সাংবাদিকদের জানান, পুলিশের গাড়ি ভাঙার ঘটনায় অপরাধীকে চিহ্নিত করে বিচার ও ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা বলার পরেও পুলিশ তার সামনেই ছাত্রলীগ সদস্যদের পিটিয়েছে। জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলী মূলধারার নয় দাবি করে তার সঙ্গে খারাপ আচরণের অভিযোগও তোলেন এমপি। পুলিশের সর্বচ্চো মহলে বিষয়টি তিনি জানিয়ে মহররম আলীর বরখাস্ত ও বিচারের দাবিও করেছেন বলে জানান।

এর কিছুক্ষণ পরই সংবাদ সম্মেলনে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল কবির রেজা জেলা পুলিশকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, শোক দিবসের আলোচন সভায় কোনো ছাত্রলীগ সদস্যকে পুলিশ লাঠিচার্জ করেনি। যাদেরকে পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে তারা ছাত্রলীগের শোক মিছিলে ইট পাটকেল মেরেছে।

গতকাল ১৫ আগস্ট সোমবার সকালে বরগুনা শিল্পকলার সামনে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পদবঞ্চিত সবুজ মোল্লার সমর্থকদের সঙ্গে সভাপতি পদপ্রাপ্ত রেজাউল কবির রেজার সমর্থকদের সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় তাদের ছোড়া ইটে পুলিশের গাড়ির গ্লাস ভেঙে যায়। পরে রেজা সমর্থকরা পুলিশের ধাওয়া খেয়ে সরে পড়ে। তবে শিল্পকলার ভেতরে থাকা সবুজ মোল্লার সমর্থকদের সংসদ সদস্য শম্ভুর সামনে পুলিশ লাঠিচার্জ করে।

Back to top button