বিশ্ববাজারে আরও কমল জ্বালানি তেলের দাম

বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও চাহিদার ওপর মুদ্রাস্ফীতির প্রভাবে বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম আরেক দফা কমেছে।আজ সোমবার (১৫ আগস্ট) দ্বিতীয় সেশনে তেলের দাম কমার এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। বিশ্বের বৃহত্তম অপরিশোধিত তেল আমদানিকারক চীনের উৎপাদন কমে যাওয়ায় চাহিদাও কমে গেছে। এদিকে, বিশ্বের শীর্ষ রপ্তানিকারক সৌদি আরামকোর প্রধান বলেন, তারা উৎপাদন বাড়াতে প্রস্তুত।

দাম করার পর ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচার ১ দশমিক ১৪ ডলার বা ১ দশমিক ২ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ব্যারেলপ্রতি হয়েছে ৯৭ দশমিক ০১ ডলার। ইউএস ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ক্রুড প্রতি ব্যারেল ১ দশমিক শূন্য ৬ দশমিক বা ১ দশমিক ২ শতাংশ হ্রাস পেয়ে দাঁড়ায় ৯১ দশমিক শূন্য ৩ ডলার। চীনের সরকারি তথ্য অনুযায়ী, জুলাই মাসে চীনের অর্থনীতি অপ্রত্যাশিতভাবে ধীর হয়ে যায়। এ সময় শোধনাগারের উৎপাদন দৈনিক ১২ দশমিক ৫৩ মিলিয়ন ব্যারেলে নেমে আসে, যা ২০২০ সালের মার্চের পর থেকে সর্বনিম্ন।

মুডি’স অ্যানালিটিক্সের অর্থনীতিবিদ হেরন লিন বলেন, চীনের সরকারি তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে বলা যায়, তেলের রেকর্ড পরিমাণ উচ্চ দামের কারণে অভ্যন্তরীণ সরবরাহ এবং ভোক্তাদের চাহিদা হ্রাস পেয়েছে।তিনি বলেন, কোভিড-১৯ বিধিনিষেধে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ তেলের সঞ্চয় বৃদ্ধি এবং ব্যবহার হ্রাস করাকে উৎসাহিত করে। এতে তেলের চাহিদা বছরের বাকি অংশে নিম্নমুখী থাকতে পারে। রোববার আরামকোর প্রধান নির্বাহী আমিন নাসের সাংবাদিকদের বলেন, সৌদি আরব সরকার অনুরোধ করলে সৌদি আরামকো অপরিশোধিত তেলের উৎপাদন সর্বোচ্চ দৈনিক ১২ মিলিয়ন ব্যারেল বাড়ানোর জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স

Back to top button