চকবাজারে আগুন: বরিশাল হোটেল থেকে মিলল ৬ লাশ

রাজধানীর চকবাজারের কামালবাগের দেবীদাস ঘাটের প্লাস্টিক কারখানা ও গোডাউনের ভবনে থাকা বরিশাল হোটেলের মাচাং থেকে ৬টি লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের সদস্যরা।

লাশগুলো একেবারে পুড়ে গেছে, ফলে নিহতদের মধ্যে কোনো নারী ছিল কিনা শনাক্ত করা যাচ্ছে না।

ধারণা করা হচ্ছে, বরিশাল হোটেল থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়।

সোমবার (১৫ আগস্ট) ১২টার দিকে দেবীদাস ঘাটের ওই প্লাস্টিক কারখানা ও গোডাউনে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট আড়াই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, হোটেলের ভেতরকার সব ধরনের আসবাব পুড়ে গেছে। কিছু খাবারও পুড়ে গেছে।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা বজলুর রশিদ বাংলানিউজকে বলেন, তিনতলা ভবনের দোতলা পর্যন্ত দালান। উপরের দিকের অংশ টিন শেডের তৈরি। নিচতলার কয়েকটি দোকানের মধ্যে একটি ছিল বরিশাল হোটেল।

ধারণা করা হচ্ছে, হোটেলটি থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। হোটেলের মাচাং থেকে ৬ জনের লাশ উদ্ধার করেছে সদস্যরা। তাদের মধ্যে কোনো নারী ছিল কিনা, আইডেন্টিফাই করা যায়নি। আগুনের ঘটনার সময় তারা ঘুমিয়ে ছিলেন বলে মনে হচ্ছে। তারা হোটেলটির কর্মচারী হতে পারেন।

নিহতদের মধ্যে চারজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন- শরিফ-১৫, বিল্লাল-৩৫, স্বপন-২২, ওসমান-২৫। বাকি দুইজনের নাম এখনও জানা যায়নি।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে (ডিএমপি) লালবাগ বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) জাফর হোসেন বলেন, উদ্ধার মরদেহগুলো স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। সেখানে মরদেহগুলো ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে শনাক্ত করে নিহতদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

Back to top button