সম্মান দেওয়ার মালিক আল্লাহ, কেউ আমাকে সরাতে পারবে না: হিরো আলম

সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল অভিনেতা-গায়ক আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। অভিনয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন জনপ্রিয় গানকে নিজের মতো করে গেয়ে বিতর্কিতও হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি বিকৃতভাবে গান গাওয়ার অভিযোগে হিরো আলমের ডাক পড়ে ডিএমপির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগে। সেখানে তাকে নানা বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এরপর থেকেই নতুন করে আলোচনায় উঠে এসেছে তার নাম।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছেন তিনি। একে একে আরব নিউজ, খালিজ টাইমস, ফ্রান টোয়েন্টিফোর, এএফপি, বিবিসি ওয়ার্ল্ড গুরুত্বের সঙ্গে হিরো আলমের সংবাদ প্রচার করে। গতকাল রবিবার ৭ আগস্ট ফেসবুক লাইভে আসেন হিরো আলম। এ সময় বেশ কিছু অভিযোগ করেন। একটি চক্র তাকে মিডিয়া থেকে বের করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

হিরো আলম বলেন, ‘আশা করি, সবাই ভালো আছেন। কারণ ছাড়া আমি কখনও লাইভে আসি না। একটি চক্র আমার পেছনে উঠেপড়ে লেগেছে। তারা আমার সম্মান নষ্ট করার চেষ্টা করছে। পাশাপাশি আমাকে মিডিয়া থেকে বের করার ফন্দি এঁটেছে। কিন্তু সরাতে পারছে না। তাই আমার নামে মিথ্যা মামলা করছে। যাতে আমি হরয়ানির শিকার হই।’

তিনি আরও বলেন, ‘সাত বছর ধরে আমি মাঠে লড়ছি। নিজের মতো করে সংগ্রাম করছি। কেউ আমার সংগ্রামে এগিয়ে আসেনি। তবুও কেউ আমাকে সরাতে পারেনি। গত কয়েকদিন ধরে দেখছেন, আমাকে নিয়ে সারা বিশ্বের সব বড় বড় গণমাধ্যম সংবাদ করছে। আমি যদি প্রতারক হতাম, তাহলে তারা কোনোদিন আমার পক্ষ নিয়ে সংবাদ করতো না।’

হিরো আলম বলেন, ‘আমার নামে দেশের বিভিন্ন থানায় জিডি করা হচ্ছে। তার কোনোটা যদি সত্য প্রমাণ হয়, যে শাস্তি হবে আমি মাথা পেতে নেবো। যারা জিডি করছে তাদের বিরুদ্ধে আমি মামলা করতে পারতাম। কিন্তু তা আমি করিনি। তাদের মধ্যে কেউ কেউ আমার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বর পাবলিক করে দিয়েছে। তারা আমার পাঁচটা ইউটিউব চ্যানেল হ্যাক করে নিয়েছে। আমি পুলিশের সাহায্যে তিনটি উদ্ধার করেছি।’ তার ভাষ্য, ‘সম্মান ও ক্ষমতা দেওয়ার মালিক আল্লাহ। কেউ ইচ্ছে করলে কোনো কিছু করতে পারবে না।’

Back to top button