লোডশেডিং কমিয়ে আনার চিন্তা ভাবনা চলবে: জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

এবার বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বিদ্যুৎ পরিস্থিতি আরও নিয়ন্ত্রিত ও লোডশেডিং কমিয়ে আনার চিন্তা ভাবনা চলছে। সেপ্টেম্বরে পরিস্থিতি আরও উন্নতি হবে। তিনি বলেন, রাজধানীতে লোডশেডিংয়ের সময় মানা যাচ্ছে তবে ঢাকার বাইরে মানা যাচ্ছে না। আজ শুক্রবার ৫ আগস্ট সকালে রাজধানীর বারিধারায় নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় নসরুল হামিদ লোডশেডিং পরিস্থিতি নিয়েও কথা বলেন।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, কয়লা উত্তোলন নিয়ে নতুন করে ভাবছে না সরকার। পরিবেশ-প্রতিবেশের প্রতি খেয়াল করতে হবে। সমালোচকদের সব কথা শুনলে তো হবে না। হাজার পরামর্শ আসছে, কিন্তু সব শোনা যাবে না। ইউক্রেন যুদ্ধের আগে অবস্থা এমন ছিল না; এখন সব বদলে গেছে। কয়লা খনি নিয়ে কঠিন কিছু বিষয় সামনে এসেছে, সেগুলো সমাধান না করে নতুন করে কয়লা উত্তোলন সম্ভব নয়।

তিনি আরও বলেন, ব্যবসায়ীরা চাইলেও রাত ৮টার পর দোকান খোলা রাখার অনুমতি দেয়া সম্ভব হবে না বলেও জানান তিনি। নসরুল হামিদ বলেন, অনেকের কাছ থেকে অফার পাচ্ছি জ্বালানি তেল কেনার বিষয়ে। তবে এখনো এ নিয়ে উপসংহারে আসিনি। এক মাস গেলে সব তথ্য বিশ্লেষণ করে বুঝতে পারব- কী হারে জ্বালানি সাশ্রয় হলো।

তিনি বলেন, বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমেছে কিন্তু ততোটা কমেনি। তেলের বাজারে সরকার বহুদিন ধরে ভর্তুকি দিচ্ছে। সরকারি কর্মকর্তারা অনেক বেশি গাড়ি ব্যবহার করেন। সরকারি কাজে শুধু সরকারি গাড়ি ব্যবহার হবে। যারা ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি ব্যবহার করেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান প্রতিমন্ত্রী।

Back to top button