ভাড়া নিয়ে বাগবিতণ্ডা, যাত্রীর মারধরে মারা গেল বাসচালক

এবার বাস ভাড়া নিয়ে বাগবিতণ্ডার জেরে যাত্রীর মারধরে আরিফ হোসেন (২৬) নামে এক বাসচালকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার ২ আগস্ট সন্ধ্যায় আশুলিয়ার কাশিমপুর-নরসিংহপুর সড়কে। আরিফ হোসেন কিরণমালা পরিবহনের বাসচালক ছিলেন বলে জানা গেছে।

এরপর খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। আরিফ হোসেনের বাড়ি শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায়। তার পিতা মো. মোস্তফা। গাজীপুরের কোনাবাড়ী এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে বাস চালাতেন তিনি।

এদিকে পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার বিকেলে কিরনমালা পরিবহনের একটি বাস কোনাবাড়ী থেকে ঢাকার মিরপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সন্ধ্যায় বাসটি কাশিমপুর-নরসিংহপুর সড়কের ইটখোলা এলাকায় পৌঁছালে এক যাত্রীর সঙ্গে বাস ভাড়া নিয়ে হেলপারের বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়।

এরপর বাসটি ইটখোলায় আসলে ওই যাত্রী ভাড়া না দিয়ে বাস থেকে নেমে যান। এ সময় চালক বাস থামিয়ে যাত্রীর কাছে ভাড়া চাইলে আবারও বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ওই যাত্রী ও কয়েকজন যুবক মিলে বাসচালককে মারধর করেন। মারধরে অচেতন হয়ে পড়েন বাস চালক। পরে বাসের অন্য যাত্রীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক বলেন, মরদেহটি উদ্ধার করে ঢাকা শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Back to top button