পরীক্ষায় পাশ করেই বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তিন দিন ধরে অবস্থান করছে অনশন করছে প্রেমিকা। এদিকে, প্রেমিকা বাড়িতে হাজির হওয়া পর এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন প্রেমিক। ঘটনা ঘটেছে গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নে। এদিকে ছেলের পরিবারের পক্ষ থেকে অনশনরত মেয়েকে নানাভাবে মানসিক নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিন জানা গেছে, রংপুর সরকারি কলেজে পড়ার সময় সাদুল্যাপুরের তাহেরপুর (সাহাপাড়া) গ্রামের দুলাল সাহার ছেলে শুভ সাহার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ওই মেয়েটির।

মেয়েটির দাবি, বিয়ের প্রলোভনে শুভ তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কও করেছেন। এইচএসসি পাসের পর তাদের বিয়ে করার কথা ছিল। সদ্য প্রকাশিত এইচএসসির ফলাফলে তারা দুজনই উত্তীর্ণ হন। এরপর শুভকে বিয়ের কথা বললে টালবাহানা করতে থাকে। তাই বাধ্য হয়ে গত রোববার প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন তিনি।

এদিকে, মেয়েটি হাজির হওয়ার পর গতকাল সোমবার রাতে শুভর বাড়িতে সালিস বসে। বৈঠকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্যরা উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু সেখানে কোনো সুরাহা হয়নি। কলেজছাত্রী বলেন, ‘শুভর পরিবারের লোকজন আমাকে গালাগালি করে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার পাঁয়তারা করছে। হয় বিয়ে, না হয় আত্মহত্যা- এ ছাড়া এখন আমার আর কোনো পথ নেই।’

ফরিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ফিরোজ কবির বলেন, বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে বসা হয়েছিল। কিন্তু কোনো সুরাহা হয়নি। সাদুল্যাপুর থানার ওসি প্রদীপ কুমার রায় বলেন, ‘বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি। তবে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।’

Back to top button