জাতীয় দলের ম্যানেজারের দায়িত্বে ভাই, যা বললেন তামিম

বর্তমানে বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। অন্যদিকে টাইগারদের জার্সি গায়ে খেলেছেন তামিমের ভাই নাফিস ইকবালও। যদিও দুই ভাইয়ের একসঙ্গে জাতীয় দলে খেলার সুযোগ হয়নি। তবে এবার দুই ভাইয়ের জাতীয় দলে একসঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছে। একজন দলের ম্যানেজার হিসেবে, অন্যজন অধিনায়ক।

সময়ের স্রোতে একসাথে জাতীয় দলে খান পরিবারের দুই ভাই। মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) তামিম যখন সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছিলেন, পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন নাফিস। অনুশীলনেও ছোট ভাই পাচ্ছিলেন বড় ভাইয়ের সহায়তা। তামিম জানালেন, ঠিক এই দৃশ্যগুলোর মতই পেশাদার তাদের ‘জাতীয় দলের মধ্যকার সম্পর্ক’। এখানে তাই নাফিস তামিমের ভাই নন। তামিমের কাছে নাফিস এখন শুধু জাতীয় দলের ম্যানেজার।

তামিম বলেন, ‘এই জায়গায় আমাদের অনেক পেশাদার হতে হবে। তিনি আমার ভাই, এটা আমাদের সম্পর্ক। তবে জাতীয় দলের হয়ে খেলার সময় আমি তাকে ম্যানেজার হিসেবে আর তিনি আমাকে খেলোয়াড় হিসেবে সম্মান করতে হবে। এটা পেশাদার জায়গা, যেখানে পেশাদারিত্বই আগে আসবে, সম্পর্ক পরে।’ জাতীয় দলে দুই ভাইয়ের এক হওয়া আবার তাদের ঘরের মাটিতে, চট্টগ্রামে। চট্টগ্রামের জন্য তামিমের হৃদয়ে সবসময় বিশেষ এক জায়গা আছে। নিজের হোম গ্রাউন্ডে দর্শকরাও মাঠে ফিরছেন বলে তামিম বেশ উচ্ছ্বসিত।

‘চট্টগ্রামের জন্য আমার হৃদয়ে বিশেষ একটা জায়গা আছে। দর্শক থাকলে ভালো। অনেক দিন পর দেশের দর্শকদের সামনে খেলব। দর্শক কখনও কখনও দ্বাদশ খেলোয়াড় হয়ে ওঠে। আমরা ভালো করি বা খারাপ করি, তারা মাঠে থাকলে সমর্থনের জন্য সর্বোচ্চটুকু করে যান। আমি আমার সেরাটা চেষ্টা করব। বিপিএল ভালো গেছে মানে এই না এই সিরিজও অনেক ভালো খেলব। প্রক্রিয়া ঠিক রেখে চেষ্টা করব, দেখা যাক ফলাফল কী হয়।’– বলেন তামিম।

Back to top button