সাত বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি দিয়ে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা কাউন্সিলরের

এবার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ সলু মুক্তিযুদ্ধের সাত বীরশ্রেষ্ঠর ছবি দিয়ে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে গত রবিবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে শ্যামলী পর্যন্ত অন্তত ১০টি স্থানে এই ব্যানার লাগানো হয়েছে।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা তৈরি হলে গতকাল সোমবার ২১ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ব্যানারগুলো খুলে ফেলা হয়। স্থানীয়রা বলছেন, মাতৃভাষা দিবসে বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি দিয়ে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর ঘটনায় এলাকায় হাসাহাসি শুরু হয়েছে। এতে কাউন্সিলর ও তাঁর রাজনৈতিক কর্মীদের চরম মূর্খতা সামনে এসেছে।

এ বিষয়ে ডিএনসিসির ২৯ নম্বর কাউন্সিলর অফিস থেকে জানানো হয়েছে, ‘ব্যানারে চার ভাষা শহীদের ছবি দেওয়ার কথা ছিল। তাঁরা হচ্ছেন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার। যারা ভাষার জন্য ১৯৫২ সালে জীবন দিয়েছেন। কিন্তু ভুল করে দেওয়া হয়েছে সাত বীরশ্রেষ্ঠ মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর, হামিদুর রহমান, মোস্তফা কামাল, রুহুল আমিন, মতিউর রহমান, মুন্সি আব্দুর রউফ, নূর মোহাম্মদ শেখের ছবি। এই সাতজন ১৯৭১ সালে বাংলাদেশকে স্বাধীন করতে বীরের মতো লড়াই করে শহীদ হয়েছেন।’

এ ঘটনায় ভুল স্বীকার করে ডিএনসিসির কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ সলু বলেন, ‘আমাকে না দেখিয়ে ব্যানারগুলো লাগানো হয়েছে। একবার আমি দেখালে এই সমস্যা হতো না। ভুলের বিষয়টি সামনে আসার পর সব ব্যানার খুলে ফেলা হয়েছে। আসলে যে জায়গা থেকে প্রিন্ট করা হয়েছে, তাঁরা প্রথমে ভুল করেছে। পরে আমার কর্মীরা না বুঝেই লাগিয়ে দিয়েছে। এখন আবার সব ঠিকঠাক করে নতুন করে বানাতে দিয়েছি।’

এ ব্যাপারে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সেলিম রেজা বলেন, ‘ভাষা শহীদদের ছবির বদলে সাত বীরশ্রেষ্ঠর ছবি লাগানো হলে ইতিহাস বিকৃত করা হবে। এতে তরুণ প্রজন্ম বিভ্রান্ত হবে। এটা কাউন্সিলরের নিজস্ব চিন্তার প্রতিফলন। ব্যানারের সঙ্গে সিটি করপোরেশন কোনভাবে জড়িত নয়, তাই এমন ভুলের দায় সিটি করপোরেশন নেবে না।’

Back to top button