বোনের বিয়ের টাকা জোগাতে দিশেহারা এতিম দুই শিশু

পৃথিবীতে যদি কোন মধুর সম্পর্ক থাকে,কোন পবিত্র ভালবাসা থাকে তাহলে সেটা হল ভাই বোনের ভালবাসা। তেমনি নজির দেখা গেল কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলায়। বোনের বিয়ের টাকা জোগাতে চুল কাটা ও জুতা সেলাই করছে এতিম দুই শিশু।

জানা যায়, আগামী ৩ মার্চ বৃহস্পতিবার বোন নীপা রানী দাসের বিয়ে। প্যারালাইসিসে আক্রান্ত হয়ে দুই বছর পূর্বে পিতা নরেস চন্দ্র রবিদাস মৃত্যুবরণ করেন। নরেস চন্দ্র রবিদাসের দুই শিশু আনন্দ রবিদাস (১৩) ও সঞ্জয় রবিদাস (৮) বোনের বিয়ের টাকা জোগাতে এখন দিশেহারা।

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার লোহাজুরী ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন দক্ষিণ লোহাজুরী গ্রামে তাদের বাড়ি। বিয়েতে যৌতুক প্রদান, বরযাত্রীদের খাবার ও অনুষ্ঠান আয়োজনের প্রয়োজনীয় টাকা তাদের কাছে কিছুই নেই।

আনন্দ রবিদাস সাড়ে তিন হাজার টাকা বেতনে স্থানীয় বাজারের এক সেলুনে কাজ করে। ছোট ভাই সঞ্জয় রবিদাস চরকাউনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। সে লেখাপড়ার ফাঁকে ফাঁকে জুতা সেলাই করার কাজ করে। তাদের মা আরতি রানী দাস (৩৫) লোহাজুরী ইউনিয়ন পরিষদের অধীনে রাস্তায় মাটি কাটার কাজ করেন। তারা তিন বোন দুই ভাই।

আনন্দ ও সঞ্জয়ের বড় বোন দীপা রানী দাসের তিন বছর পূর্বে বিয়ে হয়ে যায়। মেজো বোন নীপা রানী দাসের বিয়ে ৩ মার্চ। আর ছোট বোন সীমা রানী দাস ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ে। বাড়িতে ছোট একটি ঘর ছাড়া কোনো জমি জমা নেই তাদের। বোনের বিয়ের জন্য এতিম এই দুই শিশু বিভিন্নজনের কাছে হাত পাতছে। কেউ কেউ সামান্য সহযোগিতার আশ্বাস দিলেও এখনো কেউ তাদের কিছুই দেয়নি। অর্থ সংকটের কথা জানিয়ে দীর্ঘশ্বাস ফেলছে তারা।

Back to top button