দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের কিছুই করার নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী

দেশে পর্যাপ্ত আলু উৎপাদন হচ্ছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, আলুর ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে রপ্তানি বৃদ্ধির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এ বছর ৫১ বিলিয়ন মা'র্কিন ডলার রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। সরকার আলু উৎপাদন, ব্যবহার ও রপ্তানির বিষয়ে সজাগ রয়েছে।

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বৃদ্ধির কারণেই দেশে তেল, চিনি ও ডালের মূল্য বাড়ানো হয়েছে। তাই মূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের কিছুই করার নেই। এমনটাই জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রংপুরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, প্রতিনিয়ত আন্তর্জাতিক বাজারে এসব নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে। এমন অবস্থায় দ্রব্যমূল্য কমাতে হলে ভর্তুকি দিতে হবে।

ট্যারিফ কমিশনের মাধ্যমে ১৬৮ টাকা সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। সিন্ডিকে'টের বিষয়েও লক্ষ্য রাখা হচ্ছে বলেও এসময় জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

অবহেলিত জনগোষ্ঠীর চিকিৎসা'সেবা নিশ্চিত করতে ভবিষ্যত পরিকল্পনা তুলে ধরে টিপু মুনশি বলেন, রংপুর অঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্যসেবার মান বৃদ্ধি করতে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে রংপুরে বিশ্বমানের ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে ২০ কোটি টাকা দেব। শুধু টাকা দিলেই হবে না, এটাকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। সকল স্তরের মানুষ যাতে সাশ্রয়ী মূল্যে ক্যান্সারের চিকিৎসা পায়, সেজন্য ব্যবস্থা নিতে হবে।

Back to top button