আমার এলাকায় অনুমতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে আসতে হবে; পদ হারালেন সেই চেয়ারম্যান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করায় নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার বারদী ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান বাদল, ওরফে লায়ন বাবুলকে কারণ দর্শানোর চিঠি (শোকজ) ও সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) জেলা আওয়ামী লীগ তাকে পদ থেকে অপসারণ করে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই গণমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা তো স্থায়ী অব্যাহতি দিতে পারিনা। আমরা জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সাময়িক অব্যাহতি ও কারণ দর্শানোর চিঠি দিয়েছি।

এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এম এ রাসেল কর্তৃক প্রেরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মাহাবুবুর রহমান বাদলকে সাময়িক অব্যাহতির বিষয়টি জানানো হয়।

বিবৃতিতে তিনি জানান, বারদীর একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের নবনির্বাচিত আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান বাদল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে যে বক্তব্য দিয়েছেন, তা ক্ষমার অযোগ্য। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান হয়ে লায়ন বাবুল দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়েছেন।

উল্লেখ্য, গত শনিবার একটি ওয়াজ মাহফিলে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার বারদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান বাবুল (লায়ন বাবুল) বলেছিলেন, আমি বারদী ইউনিয়নের ম্যাজিস্ট্রেট, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি কখনো বারদী আসেন, তাকেও আমার অনুমতি নিয়ে এ এলাকায় আসতে হবে।

তিনি আরও বলেছিলেন, আমাকে কেউ টাকা দিয়ে কিনতে পারবে না। আমার এলাকাতে আমি ম্যাজিস্ট্রেট। আমি যা বলবো তাই হবে। আমি যদি সুইচ অফ বলি তাহলে সেটাই হবে। প্রশাসন আমার পক্ষে কাজ করবে। কারও ফোনে প্রশাসন আসবে না। আমি আমার যোগ্যতায় চেয়ারম্যান হয়ে এসেছি। তাই কাউকে পরোয়া করি না।

Back to top button