ভাই বোনোর কৃতিত্বে ঘুরে দাড়াল পরিবার

নেত্রকোণার আটপাড়া উপজেলার আটপাড়া গ্রামের কৃতী সন্তান প্রকৌশলী মোঃ জাকিরুল ইসলাম সরকার সৌরভ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নাজনীন সরকার সুরভী। আটপাড়া উপজেলার সম্রান্ত মুসলিম পরিবারে মোঃ নুরুল ইসলাম সরকার ও হুসনে আরা বেগম এর পরিবারে জন্মগ্রহন করেন দুই মেধাবী কৃতী সন্তান। জনাব মোঃ নুরুল ইসলাম সরকার আটপাড়া উপজেলার তেলিগাতী সরকারি কলেজের প্রথম নির্বাচিত ভিপি ছিলেন। মাতাও একই কলেজের নির্বাচিত মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ছিলেন। বর্তমানে তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিবার পরিকল্পনা বিভাগে কর্মরত রয়েছেন।

প্রকৌশলী জাকিরুল ইসলাম সরকার সৌরভ খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হতে ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ স্নাতক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনলজি ফ্যাকল্টি হতে রিনিউয়েবল এনার্জিটেকনলজির উপর র্তকত্তোর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ২০১৮ সালে বিশ্বের অন্যতম স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দি অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হতে এনার্জি সিকিউরিটির উপর প্রফেশনাল ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০১০ সালে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে সহ-কারী প্রকৌশলী হিসাবে যোগদান করেন এবং ২০১৭ সালে নির্বাহী প্রকৌশলী (৫ম গ্রেড) হিসাবে পদোন্নতি পান। তিনি পেশাগত দায়িত্ব ও দক্ষতা অর্জনের বেশ কয়েকটি দেশে উন্নত প্রশিক্ষণ গ্রহন করেন।

তিনি বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদ, বিউবো শাখার যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি আইইবি এর নির্বাচিত প্রতিনিধি, পানি ও বিদ্যুৎ প্রকৌশলী সমিতির প্রচার সম্পাদক ও ঢাকাস্থ আটপাড়া সমিতি, বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমিতির আজীবন সদস্য। নাজনীন সরকার সুরভীও অত্যন্ত মেধাবী হিসাবে কৃষিবিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে জগ্ননাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্নাস মার্স্টাসে সাইকোলজিতে প্রথম হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার সুযোগ পেয়েছেন। তিনি বর্তমানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সাইকোলজি বিভাগের প্রভাষক হিসাবে অত্যন্ত সুনামের সাথে শিক্ষকতা করছেন। তিনি সামাজিক কর্মকান্ডের পাশাপাশি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ পন্থি শিক্ষক রাজনৈতির সাথেও যুক্ত রয়েছেন।

এই পরিবারটি স্বাধীনতা সংগ্রামের সময়েও পাকিস্তানি ও তাদের এদেশীও দোসরদের রোষানলে পড়ে বাড়ীঘর পুড়িয়ে দিয়েছিল। ২০০১ সালেও নির্বাচন সময়কালীন ও নির্বাচন সময় আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী তাদের বাড়িতে অবস্থান নিলে সন্ত্রাসীরা বাড়িতে হামলা ও ভাঙ্গচুর করে। বার বার এই পরিবারটি বিদ্ধস্ত হলেও মেধাবী ছেলে-মেয়েরাই পেড়েছে পরিবারকে ঘুরে দাড়াতে। মেধাবী ছেলে-মেয়েরা স্থানীয় ও জাতীয়ভাবে এগিয়ে এসে উন্নায়নের অগ্রযাত্রায় সামিল হতে চায়।

Back to top button