সভায় না আসলে নির্বাচিতদের সদস্যপদ বাতিল: ইলিয়াস কাঞ্চন

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি পদে জয় লাভ করেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন। তবে সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে ঝামেলার শেষ হচ্ছে না। এ পদ নিয়ে জায়েদ খান ও নিপুণ আক্তারের মধ্যে সৃষ্ট জটিলতা এখন আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। এ ব্যাপারে আদালত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

এদিকে নির্বাচনের আগে সরব থাকলেও জয়ের পর কিছুটা চুপচাপ হয়ে গেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন। হয়তো সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে জটিলতার কারণেই নীরব তিনি। তবে এবার শিল্পী সমিতিকে চলমান করতে চান। সেজন্য হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন দেশীয় চলচ্চিত্রের এই সফল নায়ক।

চলচ্চিত্র সমিতির দুই প্যানেল থেকে জয়ী সদস্যদের মধ্যে মনস্তাত্ত্বিক দ্বন্দ্ব চলছেই। ইতোমধ্যে মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে কার্যকরী পরিষদের সদস্য পদে জয় লাভ করা চিত্রনায়িকা রোজিনা পদত্যাগ করেছেন। এ প্যানেল থেকে জয়ী অন্য সদস্যরা এ পথে হাঁটার পরিকল্পনা করছেন।

তবে এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম অঞ্জনা। তিনি গতকাল শপথ নিয়েছেন। নির্বাচিত হয়েও যারা এখনও শপথ নেননি তাদের প্রতি হুঁশিয়ারি বার্তা দিয়েছেন নবনির্বাচিত সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন। পরপর তিন সভায় না আসলে তাদের কার্যকরী পরিষদের সদস্যপদ বাতিল হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, যারা এখনো শপথ নেননি, আমি আশা করবো তারা শপথ নিতে আসবেন। আমরা এখনো কার্যনির্বাহী পরিষদের কোনো সভা করিনি, আশা করছি সাত দিনের মধ্যে সেটা অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচিতদের কাছে সভায় উপস্থিত থাকার জন্য দাওয়াত দেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, কেউ যদি সমিতিকে না জানিয়ে পরপর তিনটি সভায় উপস্থিত না থাকে তাহলে আপনা-আপনি তার কার্যকরী পরিষদের সদস্যপদ বাতিল হয়ে যাবে।

Back to top button