নিজ ক্যাম্পাসে ইবি ছাত্রীর গায়ে হলুদ

সম্প্রতি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ হিসেবে গায়ে দেখা যাচ্ছে গায়ে হলুদের আয়োজন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের উদ্যোগেই তাদের ক্যাম্পাসে এই গায়ে হলুদের আয়োজন করা হয়।

তবে এবার ভালোবাসা দিবসেই ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ক্যাম্পাসে আয়োজন করা হয়েছে এক ছাত্রীর গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান। ক্যাম্পাসে দেখা যায় হলুদ পাঞ্জাবি এবং হলুদ শাড়ি পরিহিত একদল ছাত্র-ছাত্রী দলবেধে আড্ডা দিচ্ছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের সহপাঠী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সুমাইয়া ইয়াসমিন রিয়ার গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান হচ্ছে।

বন্ধুরা কেউ নববধূকে কেক খাওয়াচ্ছে, আবার কেউ কেউ পায়েস খাওয়াচ্ছে। অনেকেই দলবেধে আড্ডা দিচ্ছে। দেখে মনে হচ্ছে তাদের সব ভালোবাসা একাকার হয়ে গেছে। ব্যতিক্রমী এ আয়োজনের খবরে সরগরম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট প্লাটফর্মগুলো। এমন আয়োজনে মুগ্ধ শিক্ষার্থীরা।

তার বন্ধুরা বলেন, ব্যস্ততার জন্য বন্ধুরা হয়ত সবাই বিয়েতে থাকতে পারবে না। তাই মজা করেই এই গায়ে হলুদের আয়োজন। এটা আসলে বন্ধুদের ভালোবাসার বন্ধন। আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি পারিবারিকভাবে রিয়ার বিয়ে ঠিক হয়েছে। এ উপলক্ষে ভালোবাসা দিবস ও বসন্তের দিনে এই গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের আয়োজন।

এইবিষয়ে রিয়ার বান্ধবী শাপলা খাতুন বলেন, রিয়া আমাদের একজন ভালো বান্ধবী। আমরা সবাই ওকে ভালোবাসি। বসন্ত ও ভালাবাসা দিবসে বন্ধুত্বের ভালোবাসাকে স্মরণীয় করে রাখতে ক্যাম্পাসে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান।

সুমাইয়া ইয়াসমিন রিয়া বলেন, শহর থেকে এসে ক্যাম্পাসে আমার গায়ে হলুদ হবে। এটা কখনো ভাবতে পারিনি। আমার সহপাঠীদের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ।

এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় সিঙ্গেল পরিষদ স্কোয়াডের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ও ছাত্র ইউনিয়ন সংসদ ব্যতিক্রমী আয়োজনে ভালোবাসা দিবসটি পালন করেছে।

দিবসটির স্মরণে সোবমার দুপুর দেড়টার দিকে ক্যাম্পাসের ডায়না চত্বর এলাকায় ভ্যানচালক, দোকানকার ও শ্রমজীবীদের মাঝে ফুল বিতরণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়ন সংসদ। এসময় বাংলা বিভাগের জি কে সাদিক, আইন বিভাগের রুমি নোমান, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের আজিজুল হক পিয়াসসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী এসব ফুল বিতরণ করেন।

Back to top button