কোরআনে হাফেজদের বিনামূল্যে খাবার খাওয়াচ্ছেন হোটেল মালিক

কুরআন তিলাওয়াতের সুর ও শব্দ মোমিনের অন্তরের ভিত কাঁপিয়ে দেয়। গারো পাহাড়ের পাদদেশে ছোট্ট জেলা শেরপুর। জেলা সদর হাসপাতালের সামনেই ভাই ভাই হোটেল ও রেস্তোরাঁ। এর সামনে দিয়ে হেঁটে গেলে যে কারো চোখ আটকে যাবে সবুজ রঙের একটি ব্যানারে।

সেখানে হলুদ রঙে লেখা ‘পবিত্র কোরআনের হাফেজদের জন্য যে কোনো সময় খাবার ফ্রী’। শুধু হাফেজদের নয়, দরিদ্র ক্ষুধার্ত যে কেউ এই হোটেলে বিনামূল্যে খাবার পান।

কথা হয় হোটেল মালিক মাহমুদুল হাসান রনির সঙ্গে। তিনি বলেন, এই হোটেল আমার বাবা দেখাশোনা করতেন। এখন আমি করি। গত ৬ মাস থেকে হাফেজ এবং দরিদ্র মানুষকে বিনামূল্যে খাবার দেওয়ার চেষ্টা করছি। আল্লাহ রহমত করলে এই কাজটুকু সারাজীবন করে যেতে চাই।

এই মহৎ ভাবনার শুরু প্রসঙ্গে রনি বলেন, বেশ কয়েক মাস আগে কয়েকজন মাদ্রাসার ছাত্র আসে খাবার খেতে। খুব তৃপ্তি নিয়ে তারা খাবার খায়। বিষয়টি হঠাৎ করেই আমার ভালো লাগে। ইচ্ছা থাকলেও সব সময় হাফেজদের বাসায় ডেকে খাবার খাওয়ানো সম্ভব হয় না। কিন্তু ইচ্ছা করলে হোটেলে খাওয়ানো সম্ভব। সেই ভাবনা থেকেই এই ব্যবস্থা।

Back to top button