আবরার ফাহাদের জন্মদিনে ছোট ভাইয়ের আবেগঘন পোস্ট

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলে ছাত্রলীগের দ্বারা নির্মম নির্যাতনে মারা যান ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের জন্মদিন আজ। সে সময় ভারত প্রসঙ্গে ফেসবুকে পোস্ট করায় আবরারকে হত্যা করেছে বলে ধারণা করেন অনেকে। আবরারের ছোটভাই আবরার ফাইয়াজ কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী সে তার ভাইয়ের জন্মদিনে তাকে নিয়ে ফেসবুকে একটি আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‘আজ ১২ই ফেব্রুয়ারী ২০২২। ভাইয়ার ২৪তম জন্মদিন আজ। বেঁচে থাকলে আজ ২৫এ পা দিতো। কিন্তু ২ বছর ৪ মাস হলো ভাইয়া আর নেই আমাদের মাঝে। আমি কখনো দেখিনি আমাদের বাসায় ভাইয়ার জন্মদিন সেভাবে পালন করা হয়েছে । আব্বু থাকতো না আম্মু একাই আমাদের নিয়ে থাকতো, কিছু স্পেশাল রান্না করতো আর এতেই দিনটা চলে যেত। ভাইয়াকে হয়তো দুয়েকবার উইশ করেছি এর বেশি আর কিছু না।

তিনি আরো লেখেন, কিন্তু এখন এই দিনটাকে ঘিরে যে তীব্র শুন্যতা অনুভব হয় সেটা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না। বেশ অনেকটা সময় পার হয়ে গেছে। ২ মাস আগে রায়ও হয়েছে। আসামীরা আপিল করেছে। কিন্তু এদেশের উচ্চ আদালতে মামলার গতিপ্রকৃতি যে কেমন হবে সেটা শুধু আল্লাহ ই জানেন । কেউ হয়তো একদম ভুলে যাবেনা ভাইয়াকে, কিন্তু নিজের জীবনের ব্যস্ততায় যেকোনো কিছুই একসময় মনের গভীরে চাপা পড়ে যায়, যাবে। মাঝে মধ্যে অনেককে বড় ভাইদের সাথে দেখে মনে হয়, হায় রে! আমারো তো একটা ভাই ছিলো কিন্তু সে আজ কোথায়!

আর আম্মু আব্বুর মনের অবস্থা কী আল্লাহই ভালো জানেন। বাকিটা জীবন ভাইয়ার স্মৃতি মনের মধ্যে আগলে রাখা আর আল্লাহর কাছে ওর জন্য দোয়া করতেই হয়তো কাটবে তাদের। অবশ্য আর কিছু করারও নেই …আপনারাও দোয়া করবেন ভাইয়ার জন্য।’

Back to top button