৭ বছরের জেল হতে পারে ক্রিকেটার নাসিরের

অবশেষে বাংলাদেশের ক্রিকেটার নাসির হোসেনের ব্যাভিচারের দায়ে অভিযুক্ত হওয়ার পর বিচার শুরু হয়েছে। দেশের হয়ে ১০০টির বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন তিনি। গত ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে তামিমা সুলতানাকে বিয়ে করেন ডানহাতি স্পিন অলরাউন্ডার নাসির হোসেন।

এরপর নাসিরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তামিমার প্রথম স্বামী রাকিব হাসান। তিনি দাবি করেন, তামিমা এখনও তার স্ত্রী। এর ফলে ব্যাভিচারের দায়ে শাস্তি পেতে পারেন নাসির। অবশ্য এই ধরনের রায়ের নজির রয়েছে নগণ্য। তবু দোষী প্রমাণিত হলে সাত বছরের জেল হতে পারে তার।

কিন্তু অল্পতে পার পেয়ে যেতে পারেন তামিমা। তিনি জালিয়াতির অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মিরর অনলাইনে রাকিবের আইনজীবী ইশরাত হাসান দাবি করেন, নাসিরকে বিয়ে করতে ভুয়া ডিভোর্স নোটিশ তৈরি করেছেন তার মক্কেলের প্রথম স্ত্রী।

তবে রায়ের ফল নাসির ও তামিমা দম্পতির পক্ষে আসবে বলে আত্মবিশ্বাসী তাদের আইনজীবী ফরিদ উদ্দিন খান। তারা দোষী সাব্যস্ত হবে না বলে মনে করেন তিনি।

এ ব্যাপারে আইনজীবী ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘ব্যাভিচারের মামলা খুবই কম হয়। এটা হলেও প্রমাণ করা কঠিন। আমরা আত্মবিশ্বাসী প্রতিপক্ষের আনা অভিযোগ প্রমাণিত হবে না।’ ইতোমধ্যে জামিন পেয়ে মুক্ত আছেন নাসির-তামিমা।

Back to top button